ডালিম রাইস সালাদ

এই ডালিম রাইস সালাদ রেসিপি  যেকোনো শরৎ বা শীতকালীন খাবারকে আরো মজাদার করবে! ডালিম, পেস্তা এবং ভেষজ দিয়ে ভরা, সুন্দর ও সতেজ , ছুটির দিনের মজাদার রেসিপি হবে ।

এই ভাতের সালাদটি দেখতে দারূণ না? আজকের এই মনোমুগ্ধকর ছুটির সময়ে আপনার যদি একটি নতুন খাবারের  স্বাদ
পেতে ইচ্ছে হয়, তবে এই রেসিপিটি আপনার জন্য ।এটির প্রস্তুত প্রণালী অনেক সহজ। এটি দ্রুত সময়ে তৈরি করা যায় এবং এটি খুবই লোভনীয়। মশলাযুক্ত সাইট্রাস ড্রেসিং রাইস মনকে প্রফুল্লিত করে। বাদাম কুড়মুড়ে এবং ভেষজ উপাদান তাজা ও সুগন্ধযুক্ত স্বাদ দেয়। আর শেষে ডালিমের দানাগুলি রাইস সালাদের উপরিভাগে ছড়িয়ে দিন। 

আমরা সবাই ডালিম পছন্দ করি! বাসার বাচ্চারা-বড়রা সবাই স্ন্যাক খেতে পছন্দ করে। আমি সেগুলি সালাদ, ডিপ এবং আরও অনেক কিছুতে ব্যবহার করতে পছন্দ করি। ছোট্ট দানাগুলি কেবল সুস্বাদুই নয়, এগুলি ফাইবার এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টেও পরিপূর্ণ। এগুলো অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদানের জন্য পরিচিত। একই সাথে এরা ফাইবারের একটি ভাল উৎস। সবচেয়ে বড় কথা হলো এটা স্বাদে একটি মিষ্টি মধুর অনুভূতি যোগ করে!

ডালিম রাইস সালাদ

রাইস সালাদ রেসিপি উপকরণঃ

এই সহজ রাইস সালাদ রেসিপিটি তৈরি করতে আপনার যা প্রয়োজন তা এখানে দেওয়া হয়েছেঃ

  • ভাত , এটা তো প্রয়োজন অবশ্যই! আমি ওয়াইল্ড রাইস, বাদামী চাল এবং বাসমতি চালের মিশ্রণ ব্যবহার করেছি ,তবে আপনি এখানে যেকোন ভালো স্বাদের চাল ব্যবহার করতে পারেন । ছোট শস্যের চালের ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। ওয়াইল্ড রাইসের লম্বা দানার সাদা চাল এবং লম্বা দানার বাদামী চাল এই রেসিপিকে আকষর্ণীয় রুপ দেয়।
  • ডালিম – তারা উজ্জ্বল রঙ এবং দারুণ একটা গন্ধ যোগ করে ।
  • ভেষজ – পুদিনা পাতা এবং সূক্ষ্মভাবে কাটা পার্সলে এই রাইসের সালাদকে সবুজ রঙের সাথে মিলিয়ে, সুন্দর তাজা স্বাদ যোগ করে।
  • স্ক্যালিয়ন এবং রসুন  – তারা মিষ্টি, ট্যাঞ্জি ড্রেসিং এবং তাজা ভেষজগুলির সাথে বিপরীতে স্বাদের গভীরতা যুক্ত করে।
  • বাদাম –  কুড়মুড়ে মচমচে স্বাদের জন্য! আমি এই রেসিপিতে পেস্তার উজ্জ্বল সবুজ রঙ পছন্দ করি, তবে আখরোটও এখেন মিশালে দারুণ হবে।

এ সব একসাথে করার জন্য, আমি দারুচিনি, জিরা, ধনে, তাজা কমলার রস, ম্যাপেল সিরাপ, সাদা ওয়াইন ভিনেগার এবং জলপাই তেল দিয়ে একটি উষ্ণ মশলাযুক্ত সাইট্রাস ড্রেসিং তৈরি করি।

এই রেসিপিটি তৈরি করতে, প্রথমে ভাত রান্না থেকে শুরু করুন। এটি ঠান্ডা হওয়ার সাথে সাথে ড্রেসিংটি একসাথে ফেটিয়ে নিন। তারপরে, স্ক্যালিয়ন এবং রসুন হালকাভাবে ভাজুন। রান্না করা ভাত প্যানে নাড়ুন, সাথে বাদাম, অর্ধেক ড্রেসিং এবং কিছু পার্সলে দিয়ে দিন। ব্রাউন রাইস সালাদটিকে একটি সার্ভিং ডিশে স্থানান্তর করুন, এটিতে  আরও ড্রেসিং গুঁড়ো করে  দিন এবং আরও পার্সলে, পুদিনা এবং তাজা ডালিম দানা দিয়ে উপরে ছড়িয়ে দিন। ঘরের তাপমাত্রায় বা সামান্য উষ্ণতা সহকারে পরিবেশন এবং উপভোগ করুন!

IMG 23483 580x790 1 ডালিম রাইস সালাদ

সহজ রাইস সালাদ রেসিপি টিপসঃ

-শুরুতে, আপনি যদি ভাত রান্না করেন এবং আগাম ড্রেসিং তৈরি করেন তবে এই খাবারটি কয়েক মিনিটের মধ্যে পরিবেশনের জন্য রেডি হয়ে যাবে।

-কিছুটা চমক আনুন রান্নায় । আপনি যদি এই রেসিপিটিকে একটি হালকা ভেজি সাইড ডিশ হিসাবে পরিবেশন করতে পছন্দ করেন, তবে কিছু বা সমস্ত ভাতের পরিবর্তে ফুলকপি রাইস বা ব্রকলি রাইস দিন।

পরিশেষে, সব একসাথে করে ডিশে পরিণত করুন। আমি নিজে থেকে এই ভাতের সালাদ খেতে পছন্দ করি! আমি এতে প্রোটিনের জন্য রোস্ট করা ছোলা উপরে রাখি এবং ব্রাসেলস স্প্রাউটস , ফুলকপি , ব্রোকলি বা বাটারনাট স্কোয়াশের মতো রোস্টেড ভেজির সাথে তাহিনি সস দিয়ে পরিবেশন করি । এটি ঘরের তাপমাত্রায় উষ্ণ হাওয়ার মতোই ভাল স্বাদযুক্ত, এবং এটি তাপমাত্রা ভাল ভাবে ধরে রাখে, তাই এটি একটি স্বাস্থ্যকর মধ্যাহ্নভোজের জন্য নির্বাচিত করতে পারেন।

ডালিম রাইস সালাদ

প্রস্তুতির সময়: 10 মিনিট

রান্নার সময়: 30 মিনিট

মোট সময়: 40 মিনিট

4 থেকে 6 জনের জন্য পরিবেশন করা হয়

লাল, সাদা এবং সবুজ রঙের এই রাইস সালাদ রেসিপিটি হল একটি উৎসবের ছুটির সময়ের ডিশ। যাইহোক, এটি এতই সুস্বাদু যে আমরা এটিকে শরৎকাল এবং শীতকাল এ এই খাবার খেতে বাদ দিই না ! 

পরামর্শ: আপনার ভাত আগে থেকে রান্না করুন এবং রেসিপিটি তৈরি করার জন্য প্রস্তুত না হওয়া পর্যন্ত ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন।

উপকরণ

4 কাপ রান্না করা লম্বা দানা চাল , যেকোনো ধরনের – নীচের বিকল্পগুলি দেখুন

2 চা চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল।

1 গুচ্ছ স্ক্যালিয়ন , সাদা এবং সবুজ অংশ, ছোট ছোট করে কাটা

3 কোয়া রসুন , কিমা

⅓ কাপ টোস্ট করা , কাটা পেস্তা

½ কাপ কাটা পার্সলে

½ কাপ ডালিম আরিল

⅓ কাপ তাজা পুদিনা পাতা

সামুদ্রিক লবণ এবং তাজা কালো মরিচ

ভাজা ছোলা , ঐচ্ছিক

ড্রেসিং

2 টেবিল চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল

2 টেবিল চামচ সাদা ওয়াইন ভিনেগার

1 টেবিল চামচ তাজা কমলার রস , প্লাস 1 চা চামচ জেস্ট

1 টেবিল চামচ তাজা লেবুর রস

½ চা চামচ ম্যাপেল সিরাপ

আধা চা চামচ জিরা

আধা চা চামচ ধনে কুচি

¼ চা চামচ দারুচিনি

½ চা চামচ সামুদ্রিক লবণ

পুনশ্চঃস্থল গোলমরিচ 

এই রেসিপিটি তৈরি করার পরে যদি আপনার কাছে অতিরিক্ত ডালিম থাকে তবে সেগুলিকে কুকিতে যোগ করুন , সেগুলিকে সালাদের উপরে রাখুন, সেগুলিকে স্কোয়াশে ঢেলে দিন, বা জলখাবার হিসাবে উপভোগ করুন!

নির্দেশনাঃ

ড্রেসিং তৈরি করুন: একটি ছোট পাত্রে অলিভ অয়েল, ভিনেগার, কমলার রস, জেস্ট, লেবুর রস, ম্যাপেল সিরাপ, জিরা, ধনে, দারুচিনি, লবণ এবং এক চিমটি গোলমরিচ একসাথে ফেটিয়ে নিন। একপাশে সেট করুন

মাঝারি আঁচে একটি বড় কড়াইতে তেল গরম করুন। স্ক্যালিয়ন, রসুন, চিমটি লবণ এবং মরিচ যোগ করুন এবং নরম হওয়া পর্যন্ত 1 মিনিট রান্না করুন। তাপ কমিয়ে আনুন এবং রান্না করা ভাত যোগ করুন, কাঠের চামচের পিছনের অংশ ব্যবহার করে যেকোনও ক্লাম্প ভেঙে দিন। গরম না হওয়া পর্যন্ত গরম করুন। আঁচ বন্ধ করে ড্রেসিং, পেস্তা, পার্সলে এবং ডালিম দিয়ে নাড়ুন। উপরে পুদিনা পাতা এবং ভাজা ছোলা দিয়ে পরিবেশন করুন ।

মন্তব্য

বাদামী/বন্য চালের মিশ্রণ রান্না করতে একটি পাত্রে ১ কাপ ধুয়ে চাল, ২ কাপ জল, এবং ১ চা চামচ অলিভ অয়েল একত্রিত করুন এবং একটি উতরে আনুন। ঢেকে রাখুন, আঁচ কমিয়ে দিন এবং ৪৫ মিনিটের জন্য সিদ্ধ করুন। চুলা থেকে সরান এবং ১০ মিনিটের জন্য ঢেকে বসতে দিন। একটি কাঁটাচামচ দিয়ে নেড়ে নিন। ৩ কাপ রান্না করা ভাত তৈরি করে।

সাদা বাসমতি চাল রান্না করতে: একটি পাত্রে ১ কাপ ধুয়ে চাল, দেড় কাপ জল, এবং ১ চা চামচ অলিভ অয়েল একত্রিত করুন এবং একটি উতরে আনুন। ঢেকে রাখুন, আঁচ কমিয়ে দিন এবং ১৫ মিনিটের জন্য সিদ্ধ করুন। চুলা থেকে সরান এবং আরো ১০ মিনিটের জন্য ঢেকে দিন। একটি কাঁটাচামচ দিয়ে নেড়ে দিন। ৩ কাপ রান্না করা ভাত তৈরি করে।